দেশপ্রযুক্তি

টিকটক নিষিদ্ধ করা হোক, কেন্দ্রকে নির্দেশ মাদ্রাজ হা্ইকোর্টের

টিকটকে ভিডিয়ো করে না, তরুণ প্রজন্মের ্এমন কা্উকে খুঁজে পা্ওয়া্ই মুশকিল। পাবজি গেমের মতো্ই নেশাগ্রস্ত করে তুলেছে ছাত্রসমাজকে।কয়েকদিন পূর্বে্ই পাবজি গেম নিয়ে কড়া নির্দেশ দিয়েছে গুজরাত সরকার। গ্রেফতার্ও করেছিল ১০জনকে। ্এবার টিকটক মোবাইল অ্যাপ ব্যবহারকারীদের জন্য দুঃসংবাদ৷ মাদ্রাজ হাইকোর্ট বুধবার কেন্দ্রকে নির্দেশ দিয়েছে, ্এ্ই চিনা মোবাইল অ্যাপটি নিষিদ্ধ করতে হবে৷ আদালতের মতে, টিকটক অ্যাপের কনটেন্ট কিশোরদের জন্য  অনুপযুক্ত৷ এখানে পর্ণগ্রাফির মতো কনটেন্টও রয়েছে যা কমবয়সীরা সহজেই তার নাগাল পেয়ে যাচ্ছে৷কারণ, অনেকে নিজেকে জনপ্রিয় করার জন্য অশ্লীল ভিডিয়ো পোস্ট করতে্ও পিছপা হয় না।  তাছাড়া এই মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে স্কুল পড়ুয়ারা যেভাবে অনলাইনে অপরিচিতদের মাঝে নিজেদের শরীরকে এক্সপোজ করছে তা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে বেঞ্চ৷

মাদ্রাজ হাইকোর্টের বিচারপতি এন কিরুভাকরণ ও বিচারপচি এসএস সুন্দরের নির্দেশে তিনটি জিনিস উঠে আসে৷ প্রথমত, টিকটক মোবাইল অ্যাপকে নিষিদ্ধ করতে হবে৷ দ্বিতীয়ত, টিকটক মোবাইল অ্যাপে তৈরি কোনও ভিডিয়ো মিডিয়া সম্প্রচারিত করতে পারবে না৷ তৃতীয়ত, কমবয়সীদের বিশেষত ১৮র কম বয়সীরা যাতে সাইবার অপরাধের শিকার না হয় তা আটকাতে আমেরিকার মতো চিলড্রেনস অনলাইন প্রাইভেসি প্রোটেকশন অ্যাক্ট চালু করা নিয়ে কী ভাবছে৷

বিচারপতিরা তাদের নির্দেশে ইন্দোনেশিয়া ও বাংলাদেশের কথা উল্লেখ করেন৷ এই দুই দেশে নিষিদ্ধ টিকটক৷ এই মোবাইল গেমের আসক্তি জেরে কমবয়ীরা ভয়াবহ পরিণতির দিকে এগিয়ে চলেছে৷ মাদুরাইয়ের এক আইনজীবী ও সমাজকর্মী মুথু কুমার টিকটককে নিষিদ্ধের দাবিতে মাদ্রাজ হাইকোর্টে পিটিশন দাখিল করেন৷ পিটিশনে তিনি উল্লেখ করেন, এই মোবাইল অ্যাপে অতিরিক্ত আসক্তির জেরে কমবয়সীদের মধ্যে সংস্কৃতির অবনতি ঘটছে৷ পর্ণগ্রাফি সহজলভ্য হয়ে যাচ্ছে৷ শিশুনিগ্রহ বাড়ছে৷ ভারতে প্রতিমাসে ৫৪ মিলিয়ন টিকটক ব্যবহার করে৷ ২০১৮ সালে বেজিংয়ের ননগেম মোবাইল অ্যাপটি ছিল ছিল চতুর্থ ডাউনলোডেড অ্যাপ৷ এই মামলার পরবর্তী শুনানি ১৬ এপ্রিল৷

Show More

Related Articles

error: Content is protected !!
Close
Close

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker
WhatsApp us