খেলাদেশপ্রথম পাতা

ভারতের দুই তারকা ক্রিকেটারের বিরুদ্ধে সমন জারি

পুবের কলম ওয়েব ডেস্ক:

ভারতের জাতীয় দলের দুই তারকা ক্রিকেটারের বিরুদ্ধে সমন জারি করেছে দেশটির আদালত। অভিযুক্ত দুই ক্রিকেটার হলেন লোকেশ রাহুল ও হার্দিক পান্ডিয়া। নারীদের নিয়ে টকশোতে অশালীন বক্তব্যের জেরে তাদের বিরুদ্ধে এ সমন জারি করা হয়।

ঘটনার বিচারের জন্য নিযুক্ত ন্যায়পাল অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি ডি কে জৈনের বরাত দিয়ে মঙ্গলবার ইএসপিএন ক্রিকইনফো এ তথ্য জানিয়েছে।

বিচারপতি জৈন বলেন, ‘আমি গত সপ্তাহে দুজনের বিরুদ্ধে একটি সমনের নোটিশ জারি করেছি। তাদের স্বাভাবিক বিচার করা হবে। ঘটনার যথাযথ বিচারপ্রক্রিয়া নিশ্চিত করার জন্য আমাকে তাদের বক্তব্য অবশ্যই শুনতে হবে। তাদের নিজেদের আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগ দেওয়া হবে।’

ওই দুই ক্রিকেটার আইপিএল (ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ) নিয়ে ব্যস্ত রয়েছেন। আইপিএলে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের পক্ষে খেলছেন হার্দিক পান্ডিয়া। আর লোকেশ রাহুল খেলছেন পাঞ্জাবের হয়ে।

যে কারণে রাহুল পান্ডিয়ার বিরুদ্ধে সমন

গত জানুয়ারিতে বলিউডের খ্যাতনামা পরিচালক করন জোহরের উপস্থাপনায় ‘কফি উইথ করন’নামের টিভি অনুষ্ঠানে অতিথি ছিলেন ভারতীয় জাতীয় ক্রিকেট দলের অন্যতম ব্যাটসম্যান লোকেশ রাহুল ও অলরাউন্ডার হার্দিক পান্ডিয়া।

আড্ডাধর্মী ওই অনুষ্ঠানটি ভারতের একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলে সম্প্রচারিত অনুষ্ঠানে অশালীন ইঙ্গিত ও নারীদের নিয়ে অবমাননাকর বক্তব্য দেন ওই দুই ক্রিকেটার।

এ নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাপক সমালোচনা শুরু হয়। বিশেষ করে নারীরা এর তীব্র প্রতিবাদ জানান।

এক পর্যায়ে টুইটারে নিঃশর্ত ক্ষমা চান আলোচিত ওই দুই ক্রিকেটার। তবে এতে পার পাননি তারা।

ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের (বিসিসিআই) প্রশাসনিক কমিটি শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করে দুজনের বিরুদ্ধেই। অস্ট্রেলিয়া সফররত ভারতীয় দল থেকে দুজনকেই প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়। দেশে ফেরত পাঠিয়ে দেওয়ায় অসিদের বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজ মিস করেন দুজনেই।

আপত্তিকর মন্তব্যের সেই ঘটনায় অনির্দিষ্টকালের জন্য দুজনকে ভারতীয় দল থেকে বহিষ্কার করে বিসিসিআইয়ের প্রশাসনিক কমিটি।

বিসিসিআই জানায়, ঘটনার চূড়ান্ত সুরাহা না হওয়া পর্যন্ত ভারতের হয়ে মাঠে নামার নিষেধাজ্ঞা ছাড়াও বোর্ডের অনুমোদিত সব ধরনের আনুষ্ঠানিক কার্যক্রমে অংশগ্রহণে অযোগ্য থাকবেন অভিযুক্ত দুই ক্রিকেটার। যদিও কিছুদিন পর সেই নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়া হয়।

তবে বিসিসিআইয়ের আইনের ৪১ ধারা অনুযায়ী দুজনের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগের আইনি কার্যক্রম চলমান থাকে।

যেভাবে বিচার প্রক্রিয়া শুরু

অভিযোগের প্রেক্ষিতে ভারতীয় সুপ্রিম কোর্টের সাবেক বিচারপতি ডি কে জৈনকে ন্যায়পাল হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়। বিচারপতি জৈন সম্প্রতি দুজনের বিরুদ্ধে একটি সমন জারি করেছেন। ওই অভিযোগের শুনানির জন্য রাহুল আর পান্ডিয়াকে তাই বিচারপতি জৈনের সামনে হাজিরা দিতে হবে।

তবে শুনানিতে হাজিরার জন্য দুজনকে কোনো নির্দিষ্ট তারিখ দেওয়া হয়নি।

পিটিআইকে দেয়া সাক্ষাৎকারে বিচারপতি জৈন বলেন, ‘তারা কবে শুনানিতে আসবে, সেটা তারাই নির্ধারণ করবে। যখন চাইবে তখনই আসতে পারবে দুজন।’হার্দিক পান্ডিয়া ও লোকেশ রাহুল

সূত্র: পিটিআই,

 

Show More

Related Articles

মন্তব্য করুন

error: Content is protected !!
Close
Close

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker
WhatsApp us