মুনতাজের অাল জায়দির ট্রাডিশন সমানে চলছে।বছর দশেক পূর্বে বুশকে জুতো মেরেছিল ইরাকি সাংবাদিক জায়দি।তার পথ অনুসরণ করে জুতো মারা হল বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতিশ কুমারকে। সংরক্ষণ আইনের জন্য মিলছিল না কাঙ্ক্ষিত চাকরি। তাই ক্ষোভে জুতো ছুড়ে মারলেন মুখ্যমন্ত্রীকে। এ ঘটনাটি ঘটেছে পাটনাতে।

বিহার রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী নীতিশ কুমার বৃহস্পতিবার এক সম্মেলনে বক্তব্য রাখছিলেন। হুট করে এক ব্যক্তি তাঁকে উদ্দেশ করে জুতো মারে। তৎক্ষণাৎ ওই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয় বলে জানানো হয়। তবে গ্রেপ্তারের আগে অভিযুক্ত ব্যক্তিকে বেধড়ক পিটুনি দেয় মুখ্যমন্ত্রীর সমর্থকেরা।

পুলিশ জানায়, অভিযুক্ত ওই ব্যক্তির নাম চন্দন কুমার। তিনি ওই এলাকার বাসিন্দা। নিম্নবর্গের সংরক্ষণ বিরোধী আন্দোলনের সঙ্গে জড়িত। অনেক দিন থেকে তিনি আন্দোলন করছিলেন। তিনি নিজে একজন উচ্চবর্ণ সম্প্রদায়ের। জাতি উপজাতির সংরক্ষণ আইনের জন্য তিনি তার চাকরি পাচ্ছিলেন না। তাই এ কাজ করেছেন বলে জানান।

উল্লেখ্য, সংরক্ষণ ইস্যুতে বেকায়দায় মোদি সরকার।সংরক্ষণ বিলের ওপর ভিত্তি করে উচ্চবর্ণ ও নিম্নবর্ণ সম্প্রদায়ের লোকজনকে চাকরি ও অন্যান্য সুযোগ সুবিধা দেওয়া হয়। জাতি ও উপজাতিদের সংরক্ষণ আইন শিথিল করা নিয়ে প্রথমে নিম্নবর্গের বিক্ষোভের মুখে পড়ে কেন্দ্রীয় সরকার। এদিকে পাল্টা সংরক্ষণ বিরোধী আন্দোলন শুরু হয় উচ্চবর্গদের।

Leave a Reply

avatar
  Subscribe  
Notify of