নয়াদিল্লি, ৬ ডিসেম্বর­ বিজেপি সাংসদ সাবিত্রী ফুলে বিজেপির সদস্যপদ ছাড়লেন। বিজেপির সদস্যপদ ছাড়ার পরে দলের বিরুদ্ধে একগুচ্ছ অভিযোগ এনেছেন তিনি। সাবিত্রী ফুলে বলেছেন, বিজেপি সমাজে ভেদাভেদ সৃষ্টি করতে চাইছে। এ কারণেই দল থেকে পদত্যাগ করলেন তিনি।

সম্প্রতি উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ হনুমানকে দলিত হিসাবে আখ্যা দিয়ে বিতর্ক সৃষ্টি করেছেন। এ ব্যাপারে সাবিত্রী ফুলে বলেছেন, হনুমানজি দলিত ছিলেন। তিনি মনুবাদীদের ক্রীতদাস ছিলেন। দেশের দলিতদের বাঁদর ও রাক্ষস হিসাবে দেখানো হচ্ছে।

পাশাপাশি পদত্যাগী বিজেপি সাংসদ সাবিত্রী ফুলে আরও অভিযোগ করেছেন, দলিত নেত্রী বলে তিনি দলে দীর্ঘদিন ধরেই অবহেলিত। তার মতামতের কোনও গুরুত্বই দেওয়া হচ্ছে না। দেশজুড়ে দলিতদের বিরুদ্ধে চলছে ষড়যন্ত্র। দলিতরা তাদের অধিকার থেকেও বঞ্চিত।

সাবিত্রী ফুলে জানিয়েছেন, আগামী ২৩ জানুয়ারি লখনউতে তার অনুগামীদের সমাবেশের ডাক দিয়েছেন তিনি। সাবিত্রী ফুলের অভিযোগ, উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী দলিতদের যদি সত্যিই ভালোবেসে থাকেন তবে তার উচিত হনুমানজির চেয়ে দলিতদের বেশি ভালোবাসা। যোগী আদিত্যনাথ দলিতদের বাড়িতে রাজনৈতিক ফায়দা েতালার জন্য খাওয়া-দাওয়া করেছেন। প্রতিটি ক্ষেত্রেই রাঁধুনি কিন্তু দলিত নন।
সাবিত্রী ফুলের অভিযোগ, দলিত ভোট টানার জন্যেই দলিতদের ব্যবহার করা হচ্ছে। ভোটের স্বার্থে ব্যবহার করা হচ্ছে অনগ্রসর সম্প্রদায়ের মানুষদের এবং আদিবাসীদের।

Leave a Reply

avatar
  Subscribe  
Notify of