গোরক্ষার নামে হত মজলুম মামলার তদন্ত বন্ধ করল মানবাধিকার কমিশন: প্রশ্ন তুলল সিপিএম

0
12

বিশেষ প্রতিবেদন, পুবের কলমঃ ন্যায় বিচার যে কোন দেশের নাগরিকের মৌলিক অধিকার। আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সনদেও সেকথা বলা হয়েছে। অথচ আশ্চর্যজনক ভাবে গোরক্ষার নামে হত মজলুম আনসারি মামলার তদন্ত বন্ধ করল মানবাধিকার কমিশন । এ নিয়ে প্রশ্ন তোলার পাশাপাশি ন্যায় বিচার ও ক্ষতিপূরণের দাবি জানিয়েছে সিপিআইএম। সিপিআইএমের নেত্রী বৃন্দা কারাত সম্প্রতি কেন্দ্রীয় মানবাধিকার কমিশনে একটি লিখিত আবেদন রেখেছেন।
প্রসঙ্গত উল্লেখ্য দেশে বিজেপি ক্ষমতায় আসার পর থেকে নানা অছিলায় বেছে বেছে সংখ্যালঘু ও দলিত সম্প্রদায়ের উপর ক্রমাগত আক্রমণ নেমে এসেছে। রোহিত ভেমুলা থেকে আখলাক, জুনাইদ পর পর বলি হয়েছে। প্রত্যেকটি ক্ষেত্রে বিচারের বাণী নিভৃতে কাঁদে বলে মানবাধিকার সংগঠনগুলির অভিযোগ। বিচার ব্যবস্থার স্লথ গতির জন্য উগ্র হিন্দুত্ববাদীরা সাহস পাচ্ছে বলে পর্যবেক্ষকদের অভিমত।
সালটা ১০১৬ মার্চ মাসের ১৮ তারিখ ছিল মজলুম আনসারি(৩২) ও ভাইপো ইমতিয়াজ খান (১২)-র জীবনে কালো দিন। পুলিশের বয়ান অনুযায়ী মজলুম আনসারি একজন গরু ব্যবসায়ী। যথারীতি গরু বিক্রির জন্য ছাত্রা জেলার গোহাটা যাচ্ছিলেন ইমতিয়াজ কে সাথে নিয়ে। লাতেহার জেলার বালুমাঠ জঙ্গলের কাছে একজন স্বঘোষিত গোরক্ষক পিটিয়ে খুন করে গাছে ঝুলিয়ে দেয় দুজনকে। ঘটনার দুবছর হয়ে গেছে এখনও কোন বিচার হলনা। এই ঘটনাকে সিপিএমের পলিটব্যুরো সদস্য বৃন্দা কারাত হতাশাজনক বলে মন্তব্য করেছেন। উপযুক্ত কারণ ব্যখ্যা না করেই তদন্তে ইতি টানার ঘটনায় পুনঃবিবেচনা করতে আবেদন করেন তিনি। পাশাপাশি পর্যাপ্ত ক্ষতিপূরণের দাবিও জানান।

Leave a Reply

avatar
  Subscribe  
Notify of