পুবের কলম ডেস্ক: উত্তর দিল্লি পুরসভার(ওয়াজিরিবাদ)একটি প্রাথমিক স্কুলে হিন্দুমুসলিম পড়ুয়াদের আলাদা বসার ব্যবস্থা করে শাস্তির সম্মুখীন হলেন ওই স্কুলের টিচার-ইন-চার্জ সিবি সিংহ।তাঁকে সাসপেন্ড করা হয়েছে বলে জানা গেছে। যদিও শিক্ষকদের দাবি, ধর্মের ভিত্তিতে পড়ুয়াদের আলাদা বসানোর সিদ্ধান্ত তাঁদের ছিল না। স্কুল ম্যানেজমেন্ট এই সিদ্ধান্ত নিয়েছিল।সূত্রের খবর, স্কুলটি বিজেপি পরিচালিত।
একটি প্রাথমিক তদন্তে সিংহকেই এ ব্যাপারে দায়ী করা হয়েছে।এটা নাকি তাঁরই সিদ্ধান্ত। জানা গেছে, আগে ক্লাসরুমে একসঙ্গে মিলেমিশেই বসত ছাত্ররা। চলতি বছরের আগস্ট মাসে টিচার-ইন-চার্জ হওয়ার পর সংঘ-ঘনিষ্ঠ সিবি সিংহ সেই পুরনো নিয়ম পরিবর্তন করে ধর্মের ভিত্তিতে পড়ুয়াদের বসার জায়গা আলাদা করে দেন।
অন্যদিকে,বিষয়টি নজরে আসার পরে নড়েচড়ে বসেছে প্রশাসন। পুরসভার শিক্ষা দফতরের এক আধিকারিক জানান, ‘বিষয়টি জেনে আমি মর্মাহত। ধর্মের ভিত্তিতে ছোট ছোট বাচ্চাদের এমন বিভাজন কিছুতেই মেনে নেওয়া যায় না।’ অন্যদিকে এই ঘটনাকে মুসলিমদের ছোট করে, আলাদা করে তাদেরকে দ্বিতীয় শ্রেণির নাগরিকে রূপান্তরিত করার চক্রান্ত হিসেবে দেখছে অভিজ্ঞমহল।

Leave a Reply

avatar
  Subscribe  
Notify of