মতুয়া মহাসঙ্ঘের প্রধান উপদেষ্টা ‘বড়মা’ শতবর্ষে পদার্পণ করায় উপহার পাঠিয়ে শুভেচ্ছা জানালেন মমতা

0
38

মতুয়া মহাসঙ্ঘের প্রধান উপদেষ্টা বীনাপাণি দেবী ‘বড়মা’ শতবর্ষে পদার্পণ করায় তাঁকে বিভিন্ন উপহার পাঠিয়ে শুভেচ্ছা জানালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ‘বড় মা’ একশ’ বছরে পা রাখায় আজ মতুয়াদের পীঠস্থান ঠাকুর নগরের ঠাকুরবাড়িতে আনুষ্ঠানিকভাবে তাঁর জন্মদিন পালিত হয়েছে।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে রাজ্যের খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের নেতৃত্বে এক প্রতিনিধিদল আজ সকালে ঠাকুরনগরের ঠাকুরবাড়িতে ‘বড় মা’র সঙ্গে সাক্ষাৎ করে তাঁর হাতে বিভিন্ন উপহার সামগ্রী তুলে দেন৷ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁর দীর্ঘায়ু কামনা করেছেন।

আজ সারা ভারত মতুয়া মহাসঙ্ঘের সঙ্ঘাধিপতি ও বনগাঁ লোকসভা কেন্দ্রের সংসদ সদস্যা মমতা ঠাকুর, রাজ্যের খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক, বনগাঁ দক্ষিণের বিধায়ক সুরজিৎ বিশ্বাস ও তৃণমূলের অন্য নেতারা কেক কেটে, একশ’ মোমবাতি জ্বালিয়ে ধূমধাম করে ‘বড়মা’র জন্মদিন পালন কর্মসূচিতে শামিল হন। ‘বড়মা’র হাতে মুখ্যমন্ত্রীর পাঠানো একশ’ গোলাপের তোড়া তুলে দেন মন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আগামী ১৫ নভেম্বর ঠাকুরনগরে এসে বড়মাকে শুভেচ্ছা ও শ্রদ্ধার্ঘ জানাতে আসবেন এবং ওইদিন ৪ থেকে ৫ লাখ মতুয়া ভক্তের সমাগম হবে বলে জ্যোতিপ্রিয় বাবু বলেন। তিনি বলেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে ‘বড়মা’র সম্পর্ক মা ও মেয়ের সম্পর্ক। ওই সম্পর্ক দীর্ঘদিনের।

জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক এদিন কেন্দ্রীয় সরকারের পদক্ষেপের সমালোচনা করে বলেন, ‘রাজ্যে এনআরসি চালু হলে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হবেন মতুয়া সম্প্রদায়ের মানুষজন। অসমে এনআরসি চালু হওয়ায় যে ৪০ লক্ষ মানুষের নাম বাদ পড়েছে এরমধ্যে ১২ লক্ষ মতুয়া সম্প্রদায়ের মানুষ রয়েছেন। এক কোটির বেশি মানুষকে এপার বাংলা থেকে ওপার বাংলায় তাড়িয়ে দেওয়ার চেষ্টা চলছে। এতে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হবেন মতুয়ারা। কিন্তু মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তা কোনোমতেই হতে দেবেন না। মমতা বলেছেন, আমার একবিন্দু রক্ত থাকতে একজনকেও ওপার বাংলায় পাঠাতে দেবো না।

‘বড়মা’র জন্মদিন পালনকে কেন্দ্র করে আজ বিভিন্ন প্রান্ত থেকে মতুয়া ভক্তরা ঠাকুরনগরের ঠাকুর বাড়িতে উপস্থিত হয়ে ‘বড়মা’কে শুভেচ্ছা জানান

Leave a Reply

avatar
  Subscribe  
Notify of