তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনের মামলায় বিখ্যাত চিত্রসাংবাদিক ড. শহিদুল আলমের জামিন আবেদন কার্যতালিকা থেকে বাদ দিয়েছে বাংলাদেশের হাইকোর্ট। বিচারপতি একেএম আসাদুজ্জামান ও বিচারপতি এসএম মজিবুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ বৃহস্পতিবার এই আদেশ দেয়।

আদেশ প্রদানের পূর্বে আল জাজিরা টেলিভিশনে শহিদুল আলমের দেওয়া বক্তব্যের ভিডিও ফুটেজ দেখে হাইকোর্ট। পরে রাষ্ট্রপক্ষে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম ও ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ড. মো. বশিরউল্লাহ এবং শহিদুল আলমের পক্ষে ব্যারিস্টার সারা হোসেন শুনানি করেন। শুনানি শেষে হাইকোর্ট আবেদনটি কার্যতালিকা থেকে বাদ দেওয়ার আদেশ দেয়। ড. মো. বশিরউল্লাহ বলেন, হাইকোর্ট জামিন না দিয়ে আবেদনটি কার্যতালিকা থেকে বাদ দিয়েছে।

নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে উস্কানির অভিযোগে শহিদুল আলমের বিরুদ্ধে গত আগস্ট মাসে তথ্য প্রযুক্তি আইনে মামলা করে পুলিশ। ওই মামলার গ্রেপ্তারের পর থেকে তিনি কারাগারে আছেন।

এর আগে নিন্ম আদালতে জামিন চান তিনি। কিন্তু ওই আদালত জামিন না মঞ্জুর করে। পরে হাইকোর্টে জামিন চেয়ে আবেদন করেন শহিদুল আলম।

Leave a Reply

avatar
  Subscribe  
Notify of