মেসির জোড়া গোলে বড় জয় বার্সেলোনার বার্সেলোনা – ৫ সেল্টা ভিগো – ০

0
892


ক্যাম্প ন্যু– ৫ মার্চঃ ফের বার্সা তারকা লিওনেল মেসির নজরকাড়া ফুটবলের সাক্ষী থাকল গোটা ফুটবল বিশ্ব। নিজে দু’টি চমৎকার গোল করার পাশাপাশি সতীর্থদের দিয়ে দু’টি বিশ্বমানের গোল করাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করলেন তিনি। যার সুবাদে শনিবার ভারতীয় সময় গভীর রাতে লা লিগায় সেল্টা ভিগোকে ৫-০ গোলে উড়িয়ে দিল বার্সেলোনা। ঘরের মাঠের এই জয়ের সুবাদে কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে রিয়াল মাদ্রিদের কাছ থেকে শীর্ষস্থান পুনরুদ্ধার করলেন লুইস এনরিকের শিষ্যরা।
আগামী বুধবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগে টিম পিএসজির বিরুদ্ধে মরণ-বাঁচন লড়াইয়ে নামবে কাতালান ক্লাবটি। তবে এ দিনের সেল্টা ভিগোর বিরুদ্ধে এই অসাধারণ জয়ের মাধ্যমে ইতিহাস গড়ার ইঙ্গিতটাও দিয়ে রাখলো বার্সা। লিগের দশম স্থানে থাকা সেল্টা ভিগোর বিরুদ্ধে ঘরের মাঠে প্রথমার্ধের প্রায় পুরোটা সময় একতরফা আক্রমণ করে যাওয়া বার্সেলোনা ম্যাচের ২০ মিনিটে এগিয়ে যেতে পারত। তবে ভাগ্যের ফেরে তা হয়নি। প্রতিপক্ষের গোলরক্ষককে সামনে একা পেয়েও জালে বল ঢোকাতে পারেননি লুইস সুয়ারেজ। শটটি তিনি পোস্টে মারেন। ফিরতি বলে মেসির কোনাকুনি শটও ফের পোস্টে লেগে বাইরে চলে যায়।
যদিও ম্যাচের ২৪তম মিনিটে প্রথম গোলের অপেক্ষা শেষ হয় বার্সেলোনার। মাঝমাঠ থেকে বল পেয়ে এক জনকে পিছনে ফেলে বক্সের বাইরে আরেকজনকে কাটিয়ে সেল্টা ভিগোর গোলরক্ষককে একটা নীচু জোরালো শটে পরাস্ত করেন মেসি। এরপর ম্যাচের ৪০ মিনিটে গোলের ব্যবধান দ্বিগুণ করেন নেইমার। মেসির বাড়ানো বল ধরে একটা চিপ শটে গোলরক্ষকের মাথার উপর দিয়ে জালে পাঠিয়ে দেন ব্রাজিলের তারকা ফুটবলার নেইমার। এরপর দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে এক মিনিটের ব্যবধানে পর পর দু’টি আক্রমণ শানায় বার্সা। প্রথমবার সবাইকে পিছনে ফেলে সার্জিও রোবার্তো ঠিক সময়ে শট নিতে ব্যর্থ হন। এরপর বক্সের বাঁ-দিকে বল পায়ে গোলরক্ষককে একা পেয়েও তা কাজে লাগাতে পারেননি নেইমার। সেূানে প্রতিপক্ষ সেল্টার ফুটবলাররা বার্সার কাঁধে চেপে বসতে পুরোপুরি ব্যর্থ হন।
এত সবের মধ্যেও মেসির মু?কর ফুটবলে সে হতাশা মুহূর্তে ঢেকে যায়। ম্যাচের ৫৭ মিনিটে নেইমারের পাস ধরে মেসি কোনাকুনি শট বক্সের মধ্যে রাফিনিয়ার উদ্দেশ্যে বাড়িয়ে দেন। আর সেই বল ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডারের পা হয়ে পৌঁছে যায় রাকিতিচের কাছে। তিনি তা সেল্টার তেকাঠিতে পাঠিয়ে দেন। এর চার মিনিট মধ্যে মেসির বক্সে বাড়ানো বলে টোকা দিয়ে বল জালে পাঠান উমতিতি। বার্সার জার্সি গায়ে এই ফরাসি ডিফেন্ডারের এটা ছিল প্রথম গোল। এর তিন মিনিট পর মেসি আরও একটি চমৎকার গোল করেন। বাঁ-দিক থেকে বক্সে ঢুকে এক জনকে কাটিয়ে আরও দু’জনের পায়ের ফাঁক দিয়ে বল বের করে ম্যাচে নিজের দ্বিতীয় গোলটি করেন আর্জেন্টাইন অধিনায়ক। এটা ছিল মেসির এবারের লিগে এটা ২৩তম গোল। সবমিলিয়ে ৩৭ ম্যাচে ৩৮ গোল। ১৯ গোল করে দ্বিতীয় স্থানে সুয়ারেজ। এই জয়ের ফলে ২৬ ম্যাচে বার্সেলোনার ৬০ পয়েন্ট সংগ্রহ করে ফেলে। সেূানে ২৫ ম্যাচে রিয়ালের সংগ্রহ ৫৯ পয়েন্ট।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here