প্রোমোটারের বিরুদ্ধে জাতীয় ক্রেতা আদালতে নালিশ– দরজা খুলল শীর্ষ কোর্ট

0
210

নয়াদিল্লি– ২২ ফেব্র&য়ারিঃ প্রোমোটারদের দুর্নীতির বিরুদ্ধে ফ্ল্যাটমালিকরা একসঙ্গে সরাসরি ন্যাশনাল কনজিউমার ডিসপুটস রিড্রেসাল কমিশন বা এনসিডিআরসি-র কাছে অভিযোগ জানাতে পারেন। বুধবার সুপ্রিম কোর্টের এক ডিভিশন বেঞ্চের বিচারপতিরা এই রায় দিয়েছেন। নিয়ম অনুযায়ী ১ কোটি টাকার বেশি দামের ফ্ল্যাটের ক্ষেত্রে প্রোমোটারের সঙ্গে কোনও বিরোধ হলে সরাসরি এনসিডিআরসি-র কাছে অভিযোগ জানানো যায়। কিন্তু ফ্ল্যাটের দাম ১ কোটি টাকার কম হলে প্রথমে জেলা ক্রেতা আদালতে– তারপর রাজ্য ক্রেতা আদালতে আবেদন করে একেবারে শেষ ধাপে এসসিডিআরসির কাছে পৌঁছনো যায়। দিল্লির আÁËপালি স্যাফায়ার ডেভেলপার্স লিমিটেডের কাছ থেকে ফ্ল্যাট কিনেছিলেন বেশ কয়েûকজন ক্রেতা। কিন্তু ফ্ল্যাট সময়মতো না পেয়ে ৪৩ জন ফ্ল্যাট মালিক সরাসরি এনসিডিআরসি-র কাছে অভিযোগ জানান। তখন প্রোমোটাররা এর বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে আপিল করে যুক্তি দেন যে– ৪৩ জন ফ্ল্যাটমালিকের কারও ফ্ল্যাটের দাম ১ কোটি টাকার বেশি নয়– তাই এই মামলা নাকচ করা হোক। বিচারপতি দীপক মিশ্র– বিচারপতি এ কে খানওয়ালিকার ও বিচারপতি এম এম সান্ত্বনাগৌড়কে নিয়ে গঠিত এক বেঞ্চ প্রোমোটারদের আর্জি নাকচ করে দিয়ে বলেছে– অভিযোগকারীদের এক একজনের ফ্ল্যাটের দাম ১ কোটি টাকার কম হলেও ৪৩ জন অভিযোগকারীর ফ্ল্যাটের দাম মিলিয়ে ১ কোটি টাকার অনেক বেশি মূল্য দাঁড়ায়। তাই অভিযোগকারীদের সরাসরি এনসিডিআরসি-র কাছে আবেদন যুক্তিযুক্ত এবং তা গ্রাহ্য করা হবে। বিচারপতিরা বলেন– যেসব ফ্ল্যাট ক্রেতা দ্রুত ফ্ল্যাটের সমস্যা নিয়ে সুরাহা চান তাঁরা মিলিতভাবে সরাসরি এনসিডিআরসি-র কাছে আবেদন করুন।
সুপ্রিম কোর্টের রায়ে প্রোমোটাররা হতাশ। কনফেডারেশন অব রিয়াল এস্টেট ডেভেলপারদের সমিতির প্রেসিডেন্ট জিতাম্বর আনন্দ বলেছেন– এভাবে ক্রেতারা যদি সরাসরি এনসিডিআরসির কাছে চলে যান তাহলে আমাদের ব্যবসা করা মুশকিল হয়ে দাঁড়াবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here