কিডনি চক্র বন্ধ হয়েছে জিজ্ঞাসা মমতার

0
160

কলম প্রতিবেদক­
(অ্যাপেলো)
মুখ্যমন্ত্রী­ অ্যাপেলোর বিরুদ্ধেই সবচাইতে বেশি অভিযোগ। কোথাও কোথাও বিল ৩০ থেকে ৪০ লক্ষ টাকা। যা ফাইভ স্টার হোটেলের থেকেও বেশি। কেন এত বিল হয় আপনাদের?
অ্যাপেলো­ আমাদের এখানে বেশ কিছু নতুন চিকিৎসা সরঞ্জাম কেনা হয়েছে। সিটি স্ক্যান– রেডিয়োথেরাপি– রোবোটিক চিকিৎসা ইত্যাদি। পূর্বাঞ্চলে এত ভালো প্রযুক্তি নেই। আমাদের ১৭০টি সিসিইউ শয্যা আছে। এটা রেফারেল হাসপাতাল। শেষ পর্যায়ে অনেক রোগী আসেন। তাদেরকে বাঁচানোর জন্য বিলের পরিমাণ বেড়ে যায়।
মুখ্যমন্ত্রী­ মেশিন কিনেছেন সত্যি– কিন্তু তার টাকা তো ধীরে ধীরে তুলতে হবে। আপনি একদিনে তুলে ফেলবেন বললে কী করে হবে। সোনার ডিম পাড়া হাঁসকে একদিনেই কেটে ফেলবেন?
অ্যাপেলো­ আমরা একটি মেডিক্যাল কলেজ করছি। সেটা বাজেটেড হাসপাতাল হবে। আমরা ১০ শতাংশ ফ্রি বেল রেখেছি। বার্ষিক ছ’হাজার টাকার নীচে যাদের আয়– এমন েরাগীদের জন্য ২০ শতাংশ ছাড় দেওয়া হয়।
মুখ্যমন্ত্রী­ বার্ষিক ছ’হাজার টাকা? আপনি তো বহু পুরোনো নিয়মের কথা বলছেন। একটা ভিখিরির আয় কত জানেন? এরা নিয়ম মেনে চলে মিস্টার শুক্লা?
রাজেন্দ্র শুক্লা­ আমাদের সমীক্ষায় এদের নিয়ম না মানা ধরা পড়েছে।
মুখ্যমন্ত্রী­ তার মানে এরা সরকারের এগরিমেন্ট মানছে না তো?
(মেডিকা)
মুখ্যমন্ত্রী­ আপনাদের ওখানে কিডনি চক্র বন্ধ হয়েছে?
মেডিকা­ ছিলই না ম্যাডাম। ওটা ভুল।
মুখ্যমন্ত্রী­ ওটা ভুল হবেই…। পুলিশ তদন্ত করছে…
মেডিকা­ না ম্যাডাম। পুলিশ এনকোয়ারি করেছে কিচ্ছু পায়নি।
মুখ্যমন্ত্রী­ কেন্দ্রীয় সরকারের কাছ থেকে আমাদের কাছে অভিযোগ এসেছিল। এনকোয়ারি হয়েছে কোর্টেও গেছে। কোনও ল’ ছিল না বলে রেহাই পেয়েছেন। আইনটা অন্যভাবে তৈরি হচ্ছে। জানি আমি কেসটা। করতে দেবেন না। আমার বলার উদ্দেশ্য হল– এইসবর্ যাকেট যেন না হয়।
মেডিকা­ একটা কথা বলতে চাই। মুকুন্দপুরে যেখানে আমাদের হাসপাতালটা আছে সেখানে প্রত্যেকটা মানুষ এখান থেকে চিকিৎসা পেয়েছে।
মুখ্যমন্ত্রী­ শতপথি সাহেব বলুন।
বিশ্বরঞ্জন শতপথি­ মেডিকার কিডনির্ যাকেটের যে কেসটা আছে সেটা এখনও বিচারাধীন। রাজ্য সরকার আলিপুর কোর্টে কেস করেছিল। তাঁর বিরুদ্ধে মেডিকা সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল হাইকোর্টে গেছিল। হাইকোর্টে কেসটা পেন্ডিং আছে।
মুখ্যমন্ত্রী­ ওখানে আপনাদের একটা আইন করতে হবে। যেটা পুলিশকে করতে হবে। সেটা রাজীব দেখে নাও।
বিশ্বরঞ্জন শতপথি­ উত্তরপ্রদেশের মুখ্যসচিব একটা অভিযোগ করেছিলেন– তার বিরুদ্ধে সিআইডি তদন্ত করেছে। সিআইডি তদন্তে কিছু পাওয়া গেছিল। কেসটা বিচারাধীন আছে…
মুখ্যমন্ত্রী­ আমি কোনও শিশু পাচারেরর্ যাকেট– কিডনির্ যাকেট করতে দেব না। এটাই আমার স্ট্যান্ড।
(বেলভিউ­)
মুখ্যমন্ত্রী­ এমপি– এমএলএরা তো আপনাদের ওখানে বেশি ভর্তি হয়? চিকিৎসার মান কমছে কেন? সবাই সন্তুষ্ট হচ্ছে না কেন?
বেলভিউ­ আমাদের ওখান থেকে অনেক নার্স অন্যত্র চলে যাচ্ছে– তার জন্য সরকার একটা অর্ডার দিক। দু’মাসের মধ্যে আরেকটি নার্সিং ইউনিট চালু করছি। সমস্যা মিটে যাবে।
মুখ্যমন্ত্রী­ সরকার এটা বলতে পারে নাকি কখনও? আপনি বেশি মাইনে দিন তাহলেই তারা আর যাবে না। সরকার এটা ইমপোজ করতে পারবে না। আপনাদের সকলকে একটা কথা বলছি। বহু হাসপাতালে আইসিইউ নিয়মিত পরিষ্কার করা হয় না। েসন্ট্রালাইজড এসি যেখানে আছে। সেখানে একজন রোগী থেকে ইনফেকশন ছড়াতে পারে। এটা একটু দেখুন।
(সিএমআরআই)
মুখ্যমন্ত্রী­আপনাদের খুব বেশি বিল হয়। সে দিনের ঘটনাটি ঠিক হয়নি। কিন্তু বিলটা যা তা হচ্ছে।
সিএমআরআই­ সেদিনের ঘটনায় প্রশাসনিক সাহায্যের জন্য সরকারকে ধন্যবাদ। সেদিন ওই সাহায্য না পেলে আমরা এত তাড়াতাড়ি গুছিয়ে উঠতে পারতাম না। বিলে আমরা অবশ্যই স্বচ্ছতা নিয়ে আসব। যেখানে স্বচ্ছতা দরকার– সেখানে স্বচ্ছতা আনতেই হবে। আমরা ৪৭ বছর ধরে এখানে ওপিডি– ইমারজেন্সি চালাচ্ছি। গরিব মানুষদের জন্য আমাদের আয়ের ১০ থেকে ১২ শতাংশ ফ্রি চিকিৎসার জন্য ব্যয় করা হয়। খিদিরপুর ওয়েলফেয়ার অরগানাইজেশনের মাধ্যমেও আমরা চিকিৎসা সহায়তা দিই।
মুখ্য সচিব­ মেডিক্যাল রেকর্ডস অনলাইনে দেওয়ার ব্যবস্থা রাখুন।
(বিএম বিড়লা)
মুখ্যমন্ত্রী­ আপনাদের ফেয়ার প্রাইস ডায়গন্সটিক সেন্টার আছে?
বিএম বিড়লা­ আমরা চেষ্টা করব।
(আমরি)
আমরি­ অ্যাকটিভ কমিউনিকেশন দরকার। আমরা ফিক্সড কস্ট প্যাকেজ চালু করেছি। তার থেকে ১ টাকাও বাড়বে না।
মুখ্যমন্ত্রী­ প্যাকেজ করার আগে যেটা বলবেন– সেটাই করবেন। প্যাকেজের ওপর এক্সট্রা প্যাকেজ যেন না হয়।
আমরি­ আমাদের একটি েরাগী কল্যাণ প্রকল্প আছে।
মুখ্যমন্ত্রী­ হ্যাঁ ওই স্কিমটা েচঞ্জ করতে হবে– ওটা অনেক পুরোনো।
(রুবি)
রুবি­ পথ দুর্ঘটনার আহতরা আমাদের কাছেই বেশি আসে। প্রাথমিক চিকিৎসা আমরা বিনা পয়সাতেই করে থাকি।
মুখ্যমন্ত্রী­ আপনাদের চার্জ বড্ড বেশি। আপনাদের গ্রিভান্স সেল আছে? েরাগীরা তো রেকর্ড পায় না আপনাদের থেকে।
রুবি­ হ্যাঁ রোগীদের রেকর্ড রাখা হয়।
(পিয়ারলেস)
পিয়ারলেস­ আমরা কমিউনিকেশন বাড়ানো এবং রোগীরা যাতে অর্থনৈতিকভাবে হয়রানির শিকার না হয়– তা দেখব।
মুখ্যমন্ত্রী­ আপনারা ওখানে ভেন্টিলেশনের প্রটোকল মেইনটেন করেন?
পিয়ারলেস­ হ্যাঁ– করি।
মুখ্যমন্ত্রী­ অ্যাপেলো– সিএমআরআই আপনারা ক্যাশলেসে আসেননি কেন?
ইন্সটিটিউট অব নিউরো সায়ন্সেস (আইএনকে)­
ইন্সটিটিউড অব নিউরো সায়ন্সেস (আইএনকে)­ আমাদের বেড ভাড়া অত্যন্ত কম। মাত্র ৮০০ টাকা।
মুখ্যমন্ত্রী­ ৮০০ টাকা কম হল? আপনারা প্রচুর সরকারি সাহায্য পান। আরও সাহায্য পাবেন। পাবলিককে একটু সাহায্য করুন।
আইএনকে­ আমাদের ৪৯জন স্নায়ুরোগ বিশে¡জ্ঞ আছে।
মুখ্যমন্ত্রী­ আমাদের দিন না। সরকারি হাসপাতালে ১ -২ ঘণ্টা দেখতে পারবেন না।
(কেিপসি)­
মুখ্যমন্ত্রী­ আপনারা তো অভিনেত্রীর দেহ আটকে রেখে দিয়েছিলেন?
কেপিসি­ ওই একটা ঘটনা ঘটেছিল ম্যাডাম। এরপর আর কোনও ঘটনা ঘটেনি।
মুখ্যমন্ত্রী­ আপনারা একটু পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করুন।
(ভাগীরথী নেওটিয়া)
মুখ্যমন্ত্রী­ আপনাদের ওখানে কত বছরের বাচ্চার চিকিৎসা হয়?
ভাগীরথী­ ১ থেকে ১৪ বছর অবধি।
মুখ্যমন্ত্রী­ আপনাদের ওখানে নেগলিজেন্সের অভিযোগ রয়েছে। স্বাস্থ্য সচিব কেসটা তুলে ধরুন তো।
স্বাস্থ্য সচিব­ একজন প্রসূতির মৃতু্যর সময়– ওখানে অভিযোগ নেওয়ার জন্য আপনাদের দায়িত্বশীল কাউকে পাওয়া যায়নি। পরে পুলিশে অভিযোগ জানানোর পর ব্যবস্থা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here