ঘোষণা করলেন মুকেশ আম্বানি এপ্রিল থেকে মাসে ৩০৩ টাকায় জিওর সব সুবিধা রোমিং বাদে কথা বলা পুরো ফ্রি

0
210

মুম্বই– ২১ ফেব্র&য়ারিঃ জিও নেটওয়ার্কের ভবিষ্যৎ ঘোষণা করলেন কর্ণধার মুকেশ আম্বানি। জিও নেটওয়ার্ক শুরুর পর ঠিক ১৭০ দিনের মাথায় মুকেশ আম্বানি মঙ্গলবার সাংবাদিক সম্মেলনে ঘোষণা করেন– এপ্রিলের প্রথম দিন থেকে জিওতে আর নিখরচায় রোমিং-এর সুযোগ পাওয়া যাবে না। তবে যে কোনও মোবাইলে দেশের মধ্যে কল করলে তার জন্য কোনও চার্জ দিতে হবে না। মুকেশ আম্বানি এ দিন আবারও স্পষ্ট করে জানিয়ে দেন যে– জিওতে কথা বলার খরচ সবসময়ই ফ্রি থাকবে। জিও প্রাইম নামে নতুন এক প্রকল্পের কথা ঘোষণা করে এ দিন মুকেশ বলেন– ১ এপ্রিল থেকে জিও প্রাইম-এর গ্রাহক নেওয়া হবে। যাঁরা বর্তমানে জিও-র গ্রাহক রয়েছেন একমাত্র তাঁদেরই বছরে ৯৯ টাকা খরচ নিয়ে জিও প্রাইম-এর গ্রাহক করা হবে। জিও প্রাইমে অনেক রকম সুবিধা দেওয়া হবে বলে তিনি জানিয়েছেন। জিও প্রাইমের গ্রাহকরা এখন জিও-র গ্রাহকরা যে সুবিধা পাচ্ছেন তা ২০১৮ সালের ৩১ মার্চ পর্যন্ত পাবেন। তার জন্য মাসে তাদের ৩০৩ টাকা করে দিতে হবে। প্রথমে ১০ কোটি গ্রাহককে সদস্য করা হবে। ইতিমধ্যেই জিও-র গ্রাহক সংখ্যা ১০ কোটি ছাড়িয়ে গিয়েছে।
মুকেশ এ দিন জানিয়েছেন– ১ এপ্রিল থেকে আরও কিছু প্রকল্প আনা হবে। তা বাজারে অন্য মোবাইল সংস্থার যে কোনও প্রকল্পের থেকে আকর্ষণীয় হবে এবং বাড়তি সুবিধা মিলবে। অন্য মোবাইল সংস্থার থেকে ২০ শতাংশ বেশি ডেটা পাবেন গ্রাহকরা। জিও ৩জি ও ৪জি মোবাইল ফোন ১০০০ টাকার কাছাকাছি দামে বাজারে ছাড়বে সংস্থা। এই ব্যাপারে মোবাইল প্রস্তুতকারক সংস্থা লাভা ও ভোলটে-র সঙ্গে কথা চলছে। ভোলটে চিনা সংস্থা। মুকেশ এ দিন বলেন– আমরা অচিরেই দেশের ৯৯ শতাংশ মানুষের কাছে পৌঁছে যাব। এখন প্রতি সেকেন্ডে ৭জন করে নতুন গ্রাহক হচ্ছে জিও-র। প্রতি মাসে ১০০ কোটি জিবি ডেটা দিচ্ছি। অর্থাৎ দিনে ৩.৩ কোটি জিবিরও বেশি। তাঁর ভবিষ্যদ্বাণী– ভারত অচিরেই মোবাইল ডেটা ব্যবহারে বিশ্বের একনম্বর দেশ হবে। জিও গ্রাহকদের প্রতিদিন ৫.৫ কোটি ঘণ্টা ভিডিয়ো-অধিকার দিচ্ছে। এ দিন মুকেশের এইসব ঘোষণার পরই অন্য মোবাইল সংস্থাগুলির শেয়ারের দাম পড়তে শুরু করে। মুকেশ বলেন– এয়ারটেলের ১০ কোটি গ্রাহক পেতে মোট ১৫ বছর লেগেছে– আইডিয়া ও ভোদাফোনের নিজের জায়গায় পৌঁছতে ১৩ বছর করে লেগেছে। আর আমরা মাত্র সাড়ে পাঁচ মাসে সেই জায়গায় পৌঁছে গিয়েছি। এখানেই জিওর অভিনবত্ব।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here