শেষবার হাইকোর্টে বিচারপতি কবির

0
164


কলম প্রতিবেদক ­ পূর্ণ মর্যাদায় সুপ্রিম কোর্টের প্রাক্তন প্রধান বিচারপতি আলতামাস কবিরকে বিদায় জানাল কলকাতা হাইকোর্ট। সোমবার সকাল প্রায় ১১টা নাগাদ তাঁর মৃতদেহ নিয়ে আসা হয় হাইকোর্টে। শেষ শ্রদ্ধাজ্ঞাপনের পাশাপাশি এ দিনের জন্য হাইকোর্ট মুলতুবি করা হয়। প্রায় এক ঘণ্টা তাঁর দেহ রাখা হয় হাইকোর্টের লনে। তাঁকে শেষ দেখা দেখতে আগে থেকেই সেখানে ভিড় করেছিলেন হাইকোর্টের আইনজীবীরা। নিরাপত্তার জন্য মোতায়েন ছিল অতিরিক্ত পুলিশবাহিনীও। এ দিন বেলা সাড়ে এগারোটার পর রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রাক্তন প্রধান বিচারপতিকে শেষ শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করতে আসেন। প্রাক্তন বিচারপতির মৃতদেহে মাল্যদান করেন। এ দিন মুখ্যমন্ত্রী স্মৃতিচারণ করে বলেন–আলতামাস কবির সাহেবকে তিনি অনেক দিন ধরেই ব্যক্তিগতভাবে চেনেন। বাংলার গর্ব ছিলেন তিনি। মুখ্যমন্ত্রী উল্লেখ করেন– কলকাতা হাইকোর্ট থেকে অ্যাডভোকেট হিসেবে কাজ শুরু করে দ্বিতীয় বাঙালি সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি হন আলতামাস কবির। তাঁর মৃতু্যতে অপূরণীয় ক্ষতি হল। মুখ্যমন্ত্রী এ দিন প্রায় পনেরো মিনিট হাইকোর্টে ছিলেন। প্রাক্তন বিচারপতির পরিবারের সদস্যদের সঙ্গেও মুখ্যমন্ত্রী কিছুক্ষণ কথা বলেন। তাঁদের পাশে থাকারও আশ্বাস দেন। এ দিন শ্রদ্ধাজ্ঞাপনের সময় হাইকোর্টে উপস্থিত ছিলেন– মাইনরিটি কমিশনের চেয়ারম্যান ইন্তাজ আলি শাহ– সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়– আইনজীবী বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য সহ হাইকোর্টের বিচারপতি ও প্রবীণ আইনজীবীরা। দুপুর বারোটা নাগাদ তাঁর দেহ সল্টলেকের বাড়িতে ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়।
এ দিনে হাইকোর্টের প্রবীণ আইনজীবীরা অনেকেই স্মৃতিচারণা করে বলেন– সুপ্রিম কোর্টের প্রাক্তন বিচারপতি আলতামাস কবিরের জন্ম বিখ্যাত কবির পরিবারে। বাবা জাহাঙ্গির কবির। ক্যালকাটা বয়েজ স্কুল– প্রেসিডেন্সি কলেজে পড়াশোনা। কলেজ জীবনে ইতিহাস তাঁর প্রিয় বিষয় ছিল। কলকাতা হাইকোর্ট থেকে অ্যাডভোকেট হিসেবে সুপ্রিম কোর্টের প্রথম বাঙালি প্রধান বিচারপতি হয়েছিলেন বিজনবিহারি মুখার্জি। তারপরই কলকাতা হাইকোর্ট থেকে সুপ্রিম কোর্টের দ্বিতীয় বাঙালি প্রধান বিচারপতি হন আলতামাস কবির। আইনবিদ্যা নিয়ে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পড়াশোনা করেন। ক্রিমিনাল ম্যাটার দিয়ে পেশাগত জীবন শুরু করলেও ওয়াকফ– মিউনিসিপ্যাল– রিট ম্যাটারের বেশ কিছু মামলায় দক্ষতার সঙ্গে সওয়াল করে সুনাম অর্জন করেন। সুবক্তা হিসেবেও তাঁর সুনাম ছিল। ২০১৩ সালে সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি পদ থেকে অবসর নেন। এ দিন বিকেলে তাঁকে দাফন করা হয় কলকাতার গোবরা তিন নম্বর কবরস্থানে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here