সিনেটের অনুমোদন– অ্যাটর্নি জেনারেল জেফ সেশনসই

0
158


ওয়াশিংটন– ৯ ফেব্র&য়ারিঃ বিতর্কিত হলেও আমেরিকার নতুন অ্যাটর্নি জেনারেল হচ্ছেন জেফ সেশনসন। প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পই মনোনীত করেন আলাবামা প্রদেশের এই সিনেটরকে। মার্কিন সিনেটে তার পক্ষে ভোট পড়ে ৫২টি– বিপক্ষে ভোট দিয়েছেন ৪৭ জন।
ভোটের আগে সেশনসকে নিয়ে বিতর্ক কম হয়নি। মানবাধিকার ইস্যুতে জেফের ইতিহাস-পরিসংখ্যান তুলে বিরোধিতা করেন ডেমোক্র্যাট সদস্যরা। বর্ণবাদের অভিযোগ তোলায় ডেমোক্র্যাট এলিজাবেথ ওয়ারেনকে থামিয়ে দেওয়া হয় সিনেটে। মার্কিন বিচার বিভাগে কর্মরত ১ লক্ষ ১৩ হাজার কর্মী এবং ৯৩ জন অ্যাটর্নির প্রধান এখন জেফই। নির্বাচিত হওয়ার পর তিনি বলেন– বিতর্কের গোটা প্রক্রিয়াকে আমি স্বাগত জানাচ্ছি– যারা আমার পক্ষে দাঁড়িয়েছেন তাঁদের ধ্যনবাদ।
মনোনয়ন আটকাতে গিয়ে ডেমোক্র্যাটরা মার্টিন লুথার কিংয়ের বিধবা পbীর জেফ-বিরোধিতার ইতিহাস টেনে আনেন। ১৯৮৬ সালে জেফের ফেডারেল বিচারপতি মনোনয়ন নিয়ে তীব্র বিরোধিতা করেছিলেন তিনি– কৃষ্ণাঙ্গ ভোটারদের হুমকি দেওয়ার অভিযোগে। সেই সময় জেফের মনোনয়ন বাতিল করে দেয় সিনেট প্যানেল। বর্ণবিদ্বেষী মন্তব্যের অভিযোগ উঠেছিল জেফের বিরুদ্ধে। ৭০ বছরের জেফ তার সমবয়সি ট্রাম্পের সমর্থক ছিলেন গোড়া থেকেই।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here