হায়দরাবাদের উইকেট থেকে সাহায্য পাবঃ অশ্বিন তামিলনাডY– ৭ ফেব্র&য়ারিঃ এই প্রথম ভারতের মাটিতে টেস্ট ম্যাচ খেলতে হায়দরাবাদে হাজির টিম বাংলাদেশ। আগামী ৯ ফেব্র&য়ারি হায়দরাবাদের রাজীব গান্ধি স্টেডিয়ামে শুরু হবে সেই প্রতীক্ষিত টেস্ট ম্যাচটি। হায়দরাবাদের উপ্পলের উইকেটে বাংলাদেশের বিপক্ষে ভালো সহায়তা পাবেন বলে জানিয়ে দিলেন বর্তমান ভারতীয় ক্রিকেট দলের একনম্বর স্পিনার রবিচন্দ্রন অশ্বিন। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের অনলাইন টিভিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন– ‘হায়দরাবাদের পিচে সার্বিক সুবিধাই দুর্দান্ত। বলতে পারেন– ওটা স্পিনারদের স্বর্গরাজ্য। আমি সর্বদা সেখানে বোলিংটা খুবই উপভোগই করি। আশা করছি– ওই উইকেট থেকে আমি দারুণভাবে সাহায্য পাব।’ উপ্পলে অনুশীলনে পিচে বল সেভাবে উঠে আসেনি। তাতে অবশ্য চিন্তিত নন ভারতীয় দলের এই অলরাউন্ডারটি। এ বিষয়ে তিনি আরও বলেন– ‘এখানে না হলেও সেন্টার উইকেটে বল কিছুটা উঠে আসে। আমার বিশ্বাস– বাউন্সের ফলে আরও বেশি ফায়দা তুলে নেওয়া যায়।’ ভারতের মাটিতে এই প্রথম টেস্ট খেলবে বাংলাদেশ। যদিও ঘরের অ্যাডভান্টেজ পাওয়ার কথা মাথা থেকে সরিয়ে প্রতিপক্ষ বাংলাদেশকে গুরুত্ব দিয়ে অশ্বিন বলেন– ‘সফরকারী দল বাংলাদেশকে আমরা কখনোই হালকাভাবে নিচ্ছি না। কারণ– বর্তমান সময়ে ওরা ভালোমানের ক্রিকেট খেলে চলেছে। সম্প্রতি ওরা নিউজিল্যান্ড সফর করে এসেছে। আমরা জানি সেখানে পারফরম্যান্স করাটা কতটা কঠিন। তাই সামনের টেস্টে ওদের হালকাভাবে নেওয়াটা বুদ্ধিমানের কাজ হবে না।’ উল্লেখ্য– ২০১৫ সালে বাংলাদেশে ফতুল্লা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টেস্টে বাংলাদেশের বিপক্ষে ৫ উইকেট তুলে নিয়েছিলেন অশ্বিন। তামিলনাডর এই স্পিনারের বিশ্বাস– হায়দরাবাদের উপ্পলের উইকেটেও তিনি ফতুল্লার পুনরাবৃত্তি ঘটাতে পারবেন।

0
149

হায়দরাবাদের উইকেট থেকে সাহায্য পাবঃ অশ্বিন
তামিলনাড– ৭ ফেব্র&য়ারিঃ এই প্রথম ভারতের মাটিতে টেস্ট ম্যাচ খেলতে হায়দরাবাদে হাজির টিম বাংলাদেশ। আগামী ৯ ফেব্র&য়ারি হায়দরাবাদের রাজীব গান্ধি স্টেডিয়ামে শুরু হবে সেই প্রতীক্ষিত টেস্ট ম্যাচটি। হায়দরাবাদের উপ্পলের উইকেটে বাংলাদেশের বিপক্ষে ভালো সহায়তা পাবেন বলে জানিয়ে দিলেন বর্তমান ভারতীয় ক্রিকেট দলের একনম্বর স্পিনার রবিচন্দ্রন অশ্বিন। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের অনলাইন টিভিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন– ‘হায়দরাবাদের পিচে সার্বিক সুবিধাই দুর্দান্ত। বলতে পারেন– ওটা স্পিনারদের স্বর্গরাজ্য। আমি সর্বদা সেখানে বোলিংটা খুবই উপভোগই করি। আশা করছি– ওই উইকেট থেকে আমি দারুণভাবে সাহায্য পাব।’
উপ্পলে অনুশীলনে পিচে বল সেভাবে উঠে আসেনি। তাতে অবশ্য চিন্তিত নন ভারতীয় দলের এই অলরাউন্ডারটি। এ বিষয়ে তিনি আরও বলেন– ‘এখানে না হলেও সেন্টার উইকেটে বল কিছুটা উঠে আসে। আমার বিশ্বাস– বাউন্সের ফলে আরও বেশি ফায়দা তুলে নেওয়া যায়।’ ভারতের মাটিতে এই প্রথম টেস্ট খেলবে বাংলাদেশ। যদিও ঘরের অ্যাডভান্টেজ পাওয়ার কথা মাথা থেকে সরিয়ে প্রতিপক্ষ বাংলাদেশকে গুরুত্ব দিয়ে অশ্বিন বলেন– ‘সফরকারী দল বাংলাদেশকে আমরা কখনোই হালকাভাবে নিচ্ছি না। কারণ– বর্তমান সময়ে ওরা ভালোমানের ক্রিকেট খেলে চলেছে। সম্প্রতি ওরা নিউজিল্যান্ড সফর করে এসেছে। আমরা জানি সেখানে পারফরম্যান্স করাটা কতটা কঠিন। তাই সামনের টেস্টে ওদের হালকাভাবে নেওয়াটা বুদ্ধিমানের কাজ হবে না।’ উল্লেখ্য– ২০১৫ সালে বাংলাদেশে ফতুল্লা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টেস্টে বাংলাদেশের বিপক্ষে ৫ উইকেট তুলে নিয়েছিলেন অশ্বিন। তামিলনাডYর এই স্পিনারের বিশ্বাস– হায়দরাবাদের উপ্পলের উইকেটেও তিনি ফতুল্লার পুনরাবৃত্তি ঘটাতে পারবেন।

তামিলনাডY– ৭ ফেব্র&য়ারিঃ এই প্রথম ভারতের মাটিতে টেস্ট ম্যাচ খেলতে হায়দরাবাদে হাজির টিম বাংলাদেশ। আগামী ৯ ফেব্র&য়ারি হায়দরাবাদের রাজীব গান্ধি স্টেডিয়ামে শুরু হবে সেই প্রতীক্ষিত টেস্ট ম্যাচটি। হায়দরাবাদের উপ্পলের উইকেটে বাংলাদেশের বিপক্ষে ভালো সহায়তা পাবেন বলে জানিয়ে দিলেন বর্তমান ভারতীয় ক্রিকেট দলের একনম্বর স্পিনার রবিচন্দ্রন অশ্বিন। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের অনলাইন টিভিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন– ‘হায়দরাবাদের পিচে সার্বিক সুবিধাই দুর্দান্ত। বলতে পারেন– ওটা স্পিনারদের স্বর্গরাজ্য। আমি সর্বদা সেখানে বোলিংটা খুবই উপভোগই করি। আশা করছি– ওই উইকেট থেকে আমি দারুণভাবে সাহায্য পাব।’
উপ্পলে অনুশীলনে পিচে বল সেভাবে উঠে আসেনি। তাতে অবশ্য চিন্তিত নন ভারতীয় দলের এই অলরাউন্ডারটি। এ বিষয়ে তিনি আরও বলেন– ‘এখানে না হলেও সেন্টার উইকেটে বল কিছুটা উঠে আসে। আমার বিশ্বাস– বাউন্সের ফলে আরও বেশি ফায়দা তুলে নেওয়া যায়।’ ভারতের মাটিতে এই প্রথম টেস্ট খেলবে বাংলাদেশ। যদিও ঘরের অ্যাডভান্টেজ পাওয়ার কথা মাথা থেকে সরিয়ে প্রতিপক্ষ বাংলাদেশকে গুরুত্ব দিয়ে অশ্বিন বলেন– ‘সফরকারী দল বাংলাদেশকে আমরা কখনোই হালকাভাবে নিচ্ছি না। কারণ– বর্তমান সময়ে ওরা ভালোমানের ক্রিকেট খেলে চলেছে। সম্প্রতি ওরা নিউজিল্যান্ড সফর করে এসেছে। আমরা জানি সেখানে পারফরম্যান্স করাটা কতটা কঠিন। তাই সামনের টেস্টে ওদের হালকাভাবে নেওয়াটা বুদ্ধিমানের কাজ হবে না।’ উল্লেখ্য– ২০১৫ সালে বাংলাদেশে ফতুল্লা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টেস্টে বাংলাদেশের বিপক্ষে ৫ উইকেট তুলে নিয়েছিলেন অশ্বিন। তামিলনাডYর এই স্পিনারের বিশ্বাস– হায়দরাবাদের উপ্পলের উইকেটেও তিনি ফতুল্লার পুনরাবৃত্তি ঘটাতে পারবেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here