বইমেলায় সম্প্রীতি প্রচারে নতুন উদ্যোগ ইসলামিক ইনফরমেশন সেন্টারের জ্যোৎস্না বেগম

0
158

কলকাতা­ প্রতি বছরের মতো এবারেও কলকাতা আন্তর্জাতিক বইমেলায় অমুসলিমদের বিনামূল্যে পবিত্র কুরআন ও ইসলামি পুস্তিকা দিচ্ছে ইসলামিক ইনফরমেশন সেন্টার। সৃষ্টি কর্তার পাঠানো বাণী সকলের কাছে পৌঁছে দেবার উদ্দেশ্য নিয়েই এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে বলে সংস্থাটির পরিচালকরা জানিয়েছেন। এ ছাড়া পরস্পরকে সঠিকভাবে না জানার জন্যই আজ শুধু বাংলা নয়– সমগ্র দেশ এবং বিশ্বে নানা সংঘাত ও সমস্যার সৃষ্টি হচ্ছে। বই এক্ষেত্রে এক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিচ্ছে। কখনও সদর্থক– কখনও- বা নেতিবাচক। আর এ কথা মনে রেখেই ইসলামিক ইনফরমেশন সেন্টার সহ আরও কিছু প্রতিষ্ঠান এক অভিনব ভূমিকা নিয়েছে। গত কয়েক বছর ধরে তারা বুকস্টল এবং বুকস্টলের বাইরে কোনও এক কর্নারে দাঁড়িয়ে বিশেষ করে অমুসলিমদের কাছে বিভিন্ন ভাষায় পবিত্র কুরআন– হযরত মুহাম্মদ(সা.)-এর সংক্ষিপ্ত জীবনী কিংবা ইসলাম সম্বন্ধীয় নানা লিফলেট বিতরণ করা হচ্ছে। আমাদের বাংলায় যে হিন্দু ও মুসলমানের মধ্যে একটি বিশেষ সম্পর্ক রয়েছে তারও নজির পাওয়া যাচ্ছে বইমেলায়। অমুসলিম তরুণ-তরুণী কিংবা বইমেলায় আসা স্বামী-স্ত্রী কখনও কখনও রীতিমতো লাইন দিয়ে কুরআন ও অন্যান্য বইপত্র সংগ্রহ করছেন। …
৪৪৮ নং স্টলে বাংলা ইসলামি প্রকাশনী ট্রাস্টের ইসলামিক বুক সেন্টার থেকেই রোজ ইসলাম সম্পর্কে নানা বই বিনামূল্যে দেওয়া হচ্ছে। অমুসলিমদের মধ্যে কুরআন সম্পর্কে প্রবল আগ্রহ রয়েছে বলে মনে করেন ইসলামিক ইনফরমেশন সেন্টারের নাসির আহমেদ। তিনি বললেন– ইসলাম সম্পর্কে প্রচুর ভুল ধারণা রয়েছে। সকলের কাছে প্রকৃত ইসলামকে তুলে ধরতেই আমরা এই উদ্যোগ নিয়েছি। এই উদ্যোগের সঙ্গে সংযুক্ত এক ইসলামি সংগঠনের নেতা মুহাম্মদ নুরুদ্দিন জানান– আমরা গোটা বছর ধরে হিন্দু– খ্রিস্টান– বৌদ্ধ সহ সকল অমুসলিম ভাই-বোনেদের পবিত্র কুরআন ও ইসলামি বই উপহার দিয়ে থাকি। কয়েক বছরে সারারাজ্যের বিভিন্ন জেলায় হাজার হাজার পবিত্র কুরআন বিনামূল্যে মানুষের কাছে পৌঁছিয়ে দিয়েছি।
এ দিকে ইসলামিক ইনফরমেশন সেন্টারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে– এই ক’দিনে প্রায় তিন হাজার কুরআন দেওয়া হয়েছে। বাংলা–হিন্দি–ইংরেজি ভাষায় মূলত কুরআন পাওয়া যাচ্ছে। ইসলাম সম্পর্কে বহু চর্চিত প্রশ্নসমূহ–আপনার জন্যই শেষ ঐশীবাণী পবিত্র কুরআন প্রভৃতি পুস্তিকাও হাজার হাজার বিলি হচ্ছে। কিন্তু কী বলছেন অমুসলিমরা? কুরআন হাতে নিয়ে একজন বলেন– বহুদিন ধরে ইসলাম সম্পর্কে জানার আগ্রহ ছিল। আজ কুরআন পেয়ে সত্যিই খুব ভালো লাগছে। জানা গেছে– েময়েরাই ইসলামি বই বেশি নিচ্ছেন।
বইমেলায় এক ইসলামি বই বিতরণ কর্নারে দেখা হল এক মহিলা সাংবাদিকের সঙ্গে। তিনি এক দৈনিক পত্রিকার সঙ্গে যুক্ত। রিমা সাহা বললেন– এটা খুব ভালো উদ্যোগ। পরস্পরকে জানা কিংবা ধর্মকে জানলে বহু ভুল ধারণা কেটে যাবে। বাড়বে পারস্পরিক শ্রদ্ধা।
বই বিতরণ করছিলেন মেটিয়াবুরুজের কিশোরী সানোবর। সে জানাল– বহু মানু¡ আগ্রহী কুরআন নিতে। অনেকেই জানতে চাইছেন ইসলাম সম্পর্কে। আমরা তাদেরকে বই ও লিফলেট দিচ্ছি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here